বেলজিয়ামের রাষ্ট্রদূত নিয়ে অপপ্রচার ও মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন শহিদুল হক সহিদ

প্রবাসী ডেস্কঃ
বেলজিয়ামের রাষ্ট্রদূত নিয়ে অপপ্রচার ও মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল হক সহিদ।

বেলজিয়ামে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাস প্রধান মাননীয় রাষ্ট্রদূত জনাব শাহাদাৎ হোসেনকে নিয়ে মিথ্যাচার ও অপপ্রচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সম্মানিত সভাপতি জনাব শহিদুল হক সহিদ। তিনি বলেন সাবেক সর্বইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের বিচক্ষণতা ও দুরদর্শিতার কারনে রাতের আধারে বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন জামাতি প্রেতাত্মা, জামাতের এজেন্ডা বাস্তবায়নকারী বজলুর রশিদ বুলু। তার সময়কালে বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতারা হয়েছে পদহারা তৃনমুল কর্মীরা হয়েছে উপেক্ষিত। বেলজিয়াম আওয়ামী লীগকে করেছিল জামাতি পরিবারতন্ত্র। আবারও সেই জামাতি প্রেতাত্মা জামাতের এজেন্ডা বাস্তবায়নের বাংলাদেশের মানসম্মান ক্ষুন্ন করার জন্য বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক নিযুক্ত বেলজিয়ামের বাংলাদেশ দূতাবাস প্রধান মাননীয় রাষ্টদূত জনাব শাহাদৎ হোসেনকে নিয়ে অপপ্রচার ও মিথ্যাচার করে যাচ্ছে যা রাষ্ট্রদ্রোহীতার সামিল। মিঃ বুলু সাহেব আপনি বেলজিয়ামের রাষ্ট্রদূত সাহেবকে জামাতি বলেছেন কারন তিনি আপনার মতো জামাতির দেয়া অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণে উপস্থিত থাকেনি, তিনি পূর্ব নির্ধারিত রাষ্ট্রীয় অন্য একটি অনুষ্ঠানে ব্যস্ত থাকবেন যা আপনাকে পূর্বেই মেসেজে জানিয়েছেন। বর্তমান যুগে মিথ্যাচার করে বেশিদূর যাওয়া যায় না। রাষ্ট্রদূত সাহেবের সেই মেসেজ সম্পর্কে সবাই অবহিত আছে, আপনি অহেতুক তাকে নিয়ে বেলজিয়ামের কমিউনিটিতে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছেন। বাহ কি চমৎকার আপনার মিথ্যাচার!!!!
এইতো সে দিনের কথা আপনি নিজেই রাষ্ট্রদূতের কাছে বসার জন্য দূতাবাসে অনূষ্ঠানের সময়ের আগেই বসে থাকতেন। আজ সেই সম্মানিত ব্যক্তি আপনার কাছে জামাতের লোক আওয়ামী বিরোধী লোক হয়ে উঠেছে।নিজের রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য একজন সম্মানিত ব্যক্তিকে আপনি নব্যরাজাকার বানিয়ে ফেললেন। “এটাকেই বলে ভূতের মুখে রাম নাম ” নিজে জামাতি আর রাজাকারে উত্তরসূরী বলে সেটা অন্যের উপর চাপানো চেষ্টা করছেন।
মাননীয় রাষ্টদূত জনাব শাহদাৎ হোসেন সাহেব দীর্ঘদিন ইতালীতে ছিলেন ইতালির লোকজন সবাই জানে তিনি কেমন লোক। তিনি বেলজিয়াম এসেছে কয়েক বছর হয়ে গেছে এতদিন আপনি কোথায় ছিলেন??? যদি তিনি জামাতের লোক বা রাজাকার হয়ে থাকে তাহলে এত দিন বলেনি কেন, কেন এতদিন তার পিছনে পিছনে ঘুরঘুর করছেন। রাষ্ট্রদূত যখন জানতে পেরেছেন গত বছরে জার্মান আওয়ামী লীগের সম্মেলনে আপনাকে সর্বইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের নেত্রীবৃন্দ বেলজিয়ামের সাবেক সভাপতি হিসেবে উপস্থাপন করেছে, আর প্রমান পেয়েছেন যে আপনি জামাতেই প্রডাক্ট তাই তিনি আপনার দাওয়াতে উপস্থিত হন নাই। এতেই আপনার আতে ঘা লেগেছে তাই আপনি তাকে জামাতি নব্যরাজাকার বলতে দ্বিধা করলেন না।
আমরা বজলুর রশিদ বুলুর মতো জামাতি প্রেতাত্মাকে পরিহারের জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সহ বহির্বিশ্বের সকল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের আহবান জানাচ্ছি।
শহিদুল হক সহিদ
সভাপতি
বেলজিয়াম আওয়ামী লীগ।

Recent Comments

    © All rights reserved © 2018-19  Jamunarbarta.Com

    Desing & Developed BY লিমন কবির