শিরোনামঃ
বঙ্গবন্ধুর বাঙালি জাতীয়তাবাদের সীমানা ইতিহাসের কলঙ্কজনক অধ্যায় ১৫ আগস্টে জহিরুল আলম জসিমের শ্রদ্ধাঞ্জলি ইতিহাসের কলঙ্কজনক অধ্যায় ১৫ আগস্টে আহমেদ ফিরোজের শ্রদ্ধাঞ্জলি জাতির পিতাকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যাকাণ্ডের পরে, বাঙালি জাতিকে পৃথিবীর আর কেউ বিশ্বাস করত না: এফ এম এইচ আলী গ্রিসের সঙ্গে দ্বন্দ্ব মীমাংসার একমাত্র উপায় আলোচনা: তুরস্ক বঙ্গবন্ধুর সংগ্রাম ও আত্মত্যাগ বিশ্ব আজও স্মরণ করে ইসরাইল যাচ্ছেন আরব আমিরাতের যুবরাজ! জিয়া মার্শাল ল’ জারির মাধ্যমে গণতন্ত্রকে হত্যা করে আমিরাতের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করার হুমকি তুরস্কের বঙ্গবন্ধুসহ ১৫আগষ্টের সকল শহীদের প্রতি বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক রসায়নবিদ ডক্টর জাফর ইকবালের শ্রদ্ধাঞ্জলি

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহর আকস্মিক মৃত্যুতে আইসিএসডি উপদেষ্টা ড. মিঠুন মোস্তাফিজের শোক প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক:
বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহর আকস্মিক মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছেন ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম ফর সোস্যাল ডেভলপমেন্ট- আইসিএসডি, অস্ট্রেলিয়া’র ডিজিটাল মিডিয়া এডভাইজার ড. মিঠুন মোস্তাফিজ।

এক বিবৃতে তিনি মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

আইসিএসডি উপদেষ্টা ড. মিঠুন মোস্তাফিজ বলেন, শেখ মো. আব্দুল্লাহ ছিলেন একজন ত্যাগী, নিবেদিতপ্রাণ রাজনীতিক। ছাত্রজীবনে তিনি রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত হন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ১৯৬৬ সালের ছয় দফা আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেন তিনি। বঙ্গবন্ধুর সরাসরি তত্ত্বাবধানে গঠিত গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবেও তিনি দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৬৯ সালের গণঅভ্যুত্থান আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেন শেখ মো. আব্দুল্লাহ। এরপর ১৯৭০-এর নির্বাচনে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী কার্যক্রমে অংশ নেন।

ড. মিঠুন মোস্তাফিজ বলেন, একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ফ্রন্ট মুজিব বাহিনীর সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্ত হয়ে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন শেখ মো. আব্দুল্লাহ। ১৯৭৩ সালে স্বাধীন বাংলাদেশ সরকারের অধীনে অনুষ্ঠিত বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েও তিনি কেবল রাজনৈতিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে দেশসেবা করার লক্ষ্যে চাকরির পরিবর্তে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ এবং তাঁর নেতৃত্বে রাজনীতি করার সিদ্ধান্ত নেন। শেখ মো. আব্দুল্লাহ গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন তিনি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করলে শেখ মো. আব্দুল্লাহ ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব লাভ করেন।

শেখ মো. আব্দুল্লাহ ১৯৪৫ সালের ৮ সেপ্টেম্বর গোপালগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি কোরআন হেফজের মাধ্যমে শিক্ষাজীবন শুরু করেন। পরে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শেষ করে ১৯৬৬ সালে বিকম (সম্মান) এবং পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমকম এবং অর্থনীতিতে এমএ ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৭৭ সালে ঢাকা সেন্ট্রাল ল’ কলেজ থেকে এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি।

শনিবার মধ্যরাতে হঠাৎ অসুস্থ হলে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল (সিএমএইচ) নেওয়া হয়। সেখানে রাত পৌনে ১২টার দিকে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম ফর সোস্যাল ডেভলপমেন্ট-আইসিএসডি, অস্ট্রেলিয়া’র উপদেষ্ট ড. মিঠুন মোস্তাফিজ বলেন, শেখ মো. আব্দুল্লাহর মৃত্যুতে দেশ একজন দেশপ্রেমিক, প্রজ্ঞাবান, ত্যাগী ও নিবেদিতপ্রাণ রাজনীতিককে হারালো।

তিনি তাঁর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন।

পুরাতন বার্তা…

শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
© All rights reserved | Jamunar Barta

Desing & Developed BY লিমন কবির