সিরাজগঞ্জ হাসপাতালে ডেঙ্গু টেস্টের কীট সঙ্কট,জেলায় ১১৯ জন শনাক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক:
সিরাজগঞ্জে প্রতিদিন ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। আবার অনেকে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরছে। গত ২৪ ঘন্টায় আরো ৫ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। রবিবার (৪ আগষ্ট) দুপুর পর্যন্ত এনিয়ে জেলায় মোট ১১৯জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে। সিরাজগঞ্জ সরকারী হাসপাতালসহ বেসরকারী হাসপাতালে ৫৬ চিকিৎসাধীন রয়েছে। বাকীরা সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরেছে। এদিকে, সদর হাসপাতালে ডেঙ্গু শনাক্তকরনের জন্য কীট-রিএজেন্ট না থাকায় রোগীদের চরম দুর্ভোগে পোহাতে হচ্ছে। গরীব এসব রোগীকে বাইরে থেকে পরীক্ষা করাতে টাকা গুনতে হচ্ছে। অন্যদিকে, সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার বিভিন্ন স্থানে পুর্ণ বয়স্ক এডিস মশা ও এডিস মশার লার্ভার সন্ধান পাওয়ায় স্থানীয়দের মধ্যে ডেঙ্গু আতঙ্ক বিরাজ করছে। গত কয়েকদিনে সিভিল সার্জন কার্যলয়ের এ্যান্টোমোলজি টেকনিশিয়ানরা পৌরভবন ও পুলিশ সুপারের কার্যালয়সহ বেশ কয়েকটি সরকারী ভবনে এডিসমশা ও লার্ভার সন্ধান পেয়েছে। গত কয়েকদিনে পৌর কর্তৃপক্ষ দেশীয় কোম্পানী গৌরব ইন্ডাষ্ট্রিজ উৎপাদিত লার্ভা নিধনের জন্য লার্ভি সাইট ও উড়ন্ত মশা নিধনের জন্য পেকসুলিকুইড ব্যবহার করা করছে।

সিরাজগঞ্জ সিভিল সার্জন ডাঃ জাহিদুল ইসলাম জানান, সদর হাসপাতালে ডেঙ্গুর টেস্টের এনএস-১ টেস্টের কীট বা রিএজেন্ট যা সরবরাহ ছিল তা সকালে শেষ হয়ে গেছে। পুনরায় সরবরাহের জন্য আবেদন করা হয়েছে। দুএকদিনের মধ্যে পেলে সঙ্কট কেটে যাবে। সরবরাহ না থাকায় রোগীদের বাইরে থেকে পরীক্ষা করতে হচ্ছে।

Recent Comments

    © All rights reserved © 2018-19  Jamunarbarta.Com

    Desing & Developed BY লিমন কবির