শিরোনামঃ
সরকার কারিগরি শিক্ষাকে যুগোপযোগী করে গড়ে তুলেছে ‘সরকার আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের মাধ্যমে মানুষের জীবনমান উন্নত করছে’ প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করলো সুইডেন যুবলীগ শনিবার ২৩ নভেম্বর ওয়াশিংটনে ফোবানার মিট এন্ড গ্রীট বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৪৭ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করলো বেলজিয়াম যুবলীগ আসন্ন যুবলীগের ৭ম কংগ্রেসে ক্লিন ইমেজে আলোচনায় মহিউদ্দিন আহমেদ মহি- নিজাম উদ্দিন হাইব্রিড আর গাঁজন সন্নাসী প্রসঙ্গে কিছু মনের কথা যেভাবে বিকৃত করা হচ্ছে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামালের বক্তব্য! অর্থমন্ত্রীর ভাইরাল বক্তব্যঃ যা বলেছিলেন এবং যা শুনছি

সংবাদ প্রকাশের পর নবীদুলের দৌড়ঝাপ

নিজস্ব প্রতিবেদক:
“ভ্যান চালক থেকে ইউপি চেয়ারম্যান, শূণ্য থেকে কোটিপতি” শিরোনামে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিষয়টি ভাইরাল হওয়ার পর সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার সয়দাবাদ ইউপির চেয়ারম্যান নবীদুল ইসলাম নানাভাবে দৌড়ঝাপ শুরু করেছেন। ১৩ সেপ্টেম্বর অনলাইন যমুনার বার্তা ডটকমসহ পর্যায়ক্রমে বেশ কয়েকটি অনলাইন ও জাতীয় এবং স্থানীয় পত্রিকায় এই সংবাদটি প্রকাশ হলে নানা মহলে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় উঠে। শত শত মানুষ সংবাদটি নিজ নিজ ফেসবুকে শেয়ার করে প্রচার করতে থাকেন। এছাড়াও কমেন্ট করে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।

এদিকে, এসব ঘটনার পর ইউপি চেয়ারম্যান নবীদুল ইসলাম মানুষের দৃষ্টি আড়ালের জন্য ভিন্ন পন্থা অবলম্বন করেছেন। তার ব্যবহৃত নিজস্ব মাইক্রোবাসটি বতর্মানে সয়দাবাদ এলাকার বিদ্যুৎ অফিসের লোকজনের কাছে ভাড়া দিয়েছেন। সয়দাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে তার নিজ কক্ষে লাগানো এসি খুলে ফেলেছেন। প্রকাশিত সংবাদে নবীদুলের বিরুদ্ধে সাক্ষাতকার দেয়ায় তার পৈত্রিক বাড়ির পাশের দোকানদার চাচাতো ভাই মামুনের মুদি দোকান বন্ধ করে দিয়েছেন। অন্য যারা সাক্ষাতকার দিয়েছেন এবং সংবাদটি ফেসবুকে শেয়ার করেছেন তাদেরও হুমকি-ধামকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে যাতে আর কোন সংবাদ প্রকাশ না করা হয় এজন্য তিনি বিভিন্ন মাধ্যমে সাংবাদিকদের প্রভাবিত করার চেষ্টা করছেন বলেও অভিযোগ উঠেছে। তবে, এ সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশের পর সয়দাবাদ ইউপির সাধারন মানুষ ও নানা মহল গণমাধ্যমকর্মীদের সাধুবাদ জানিয়েছেন।

Recent Comments

    © All rights reserved © 2018-19  Jamunarbarta.Com

    Desing & Developed BY লিমন কবির