বিশ্বকাপ এবং চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আয়োজক হতে চায় বাংলাদেশ

২০১১ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ছিল যৌথ আয়োজক। ভারত এবং শ্রীলঙ্কার সঙ্গে মিলে বিশ্বকাপের আয়োজন করেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। এরপর ২০১৪ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করে এককভাবে। মাঝে এশিয়া কাপের আয়োজকও হয়েছিল বাংলাদেশ।

আগামীতেও বাংলাদেশ বিশ্বকাপ এবং চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আয়োজক হতে চায়। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালনা পর্ষদের সভায় আজ এ বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। সভা শেষে বিসিবি সভাপতি মিডিয়ার সামনে মুখোমুখি হয়ে যে বক্তব্য দিয়েছেন, সেখানেই জানিয়েছে, বিশ্বকাপ এবং চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আয়োজক হওয়ার ইচ্ছার কথা।

তবে বিশ্বকাপ এককভাবে আয়োজন করা যাবে না বলেও জানিয়ে দিয়েছেন তিনি। কারণ, একটি বিশ্বকাপ আয়োজন করতে ভেন্যু লাগে অনেক। বাংলাদেশের এত ভেন্যু নেই। এ কারণে যৌথভাবে বিশ্বকাপের আয়োজক হতে চায় বিসিবি। তবে যেহেতু চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে কম ভেন্যু লাগে, সে জন্য এই টুর্নামেন্টের জন্য এককভাবে বিড করবে বলেও জানান বিসিবি সভাপতি।

তিনি বলেন, ‘বিশ্বকাপ মেনস ইভেন্টের জন্য ১০টা ভেন্যু থাকতে হবে। সেটা এখন বাংলাদেশের জন্য কঠিন। চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে কম ভেন্যু লাগে। তাই এখানে আলাদাভাবে বিড করা যাবে। বিশ্বকাপ জয়েন্টলি বিড করবো। এশিয়ার অন্য দেশগুলোর সঙ্গে মিলে আমরা একসঙ্গে বিড করবো।’

পূর্বাচলে বিসিবির নিজস্ব অর্থায়নে স্টেডিয়াম নির্মাণ করার কথা শোনা গিয়েছিল অনেক আগে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে নির্মিতব্য সেই স্টেডিয়ামের সর্বশেষ আপডেট কী? জানাতে গিয়ে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘শেখ হাসিনা স্টেডিয়ামের তৈরির জন্য প্রস্তাব এসেছে। একটা পরামর্শক ছিল, বিদেশী কোম্পানি। তারা এগিয়ে এসেও পারেনি কোভিডের কারণে। তাই দ্বিতীয় পরামর্শক পার্টি যারা এ জাতীয় কাজ করে থাকে তাদের অনুমতি দিচ্ছি স্টেডিয়াম নিয়ে এগোনোর।’

পুরাতন বার্তা…

শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
© All rights reserved | Jamunar Barta

Desing & Developed BY লিমন কবির